‘এতদিন কি করেছেন? ঘোড়ার ঘাস কেটেছেন?’


এমনইতেই মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শান্তশিষ্ট। কারও সঙ্গে জোরে পর্যন্ত কথা বলেন না। কিন্তু শনিবার রাতে গুলশানে দলীয় কার্যালয়ে বৈঠকে মেজাজ হারিয়ে ফেললেন বিএনপি মহাসচিব।

আইনজীবীদের সঙ্গে বৈঠকে রীতিমতো উত্তেজিত মির্জা ফখরুল বললেন ‘এতদিন কি করেছেন? ঘোড়ার ঘাস কেটেছেন?’

সন্ধ্যায় বিএনপি শীর্ষ নেতারা দলের আইনজীবীদের ডাকেন। বেগম জিয়ার মামলা এবং জামিন নিয়ে আলোচনা হয়। আইনজীবীদের পক্ষ থেকে বলা হয় ‘রোববার বা সোমবারের মধ্যে জিয়া অরফানেজ দুর্নীতি মামলায় হাইকোট থেকে জামিন পাওয়া যেতে পারে।’

মির্জা ফখরুল জানতে চান ‘এই জামিন হলেই কি ম্যাডাম মুক্তি পাবেন?’ ঢাকা বারের একজন আইনজীবী বলেন ‘কুমিল্লায় দুটি এবং ঢাকায় একটি মামলায় বেগম জিয়ার নামে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা আছে। সরকার চাইলেই শ্যোন অ্যারেস্ট দেখাতে পারে এসব মালায়।’

এই মামলা গুলোর জামিনের প্রস্তুতি সম্পর্কেও জানতে চান বিএনপি মহাসচিব। এসময় একজন আইনজীবী বলেন, এসব মামলায় জামিনের আবেদন কি করবো, এগুলোর তো নকলই তোলা হয়নি।’

শুধু মির্জা ফখরুল নন, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সকল সদস্যই অবাক হয়ে যান। জিজ্ঞেস করা হলো, ‘মামলার কাগজপত্র তুলতে সমস্যা কি ছিল?’ এসময় আইনজীবীরা নিশ্চুপ। তখনই ক্ষোভে ফেটে পড়েন ফখরুল।

আজই সব মামলার নথি সংগ্রহ এবং জামিন আবেদনের প্রস্তুতির নির্দেশ দিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব।

সূত্র: বাংলা ইনসাইডার

Leave a Reply

Your email address will not be published.